Download Free FREE High-quality Joomla! Designs • Premium Joomla 3 Templates BIGtheme.net
Home » বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি » মোবাইল চোর ধরার অ্যাপ – অ্যাপের মাধ্যমে মোবাইল চোর ধরার উপায়

মোবাইল চোর ধরার অ্যাপ – অ্যাপের মাধ্যমে মোবাইল চোর ধরার উপায়

বাস থেকে নেমে বাসায় ফোন করবেন কিন্তু পকেটে হাত দিয়ে দেখেন আপনার ফোন নেই। রাস্তায় ছিনতাইকারীর কবলে পড়ে দিয়ে দিতে হল আপনার পছন্দের দামি স্মার্ট ফোনটি।

এরকম হাজারো ঘটনা ঘটে যাচ্ছে আমাদের দেশে। বর্তমানে স্মার্ট ফোন শুধু কথা বলার জন্যই ব্যবহৃত হয় না। এতে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সেইভ করা থাকে।

যেমন ধরুন আপনার ব্যাংকের অ্যাপ, আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট, আপনার বিকাশ অ্যাপসহ বিভিন্ন ধরণের গুরুত্বপূর্ণ অ্যাপ।

অনেকেই আবার গুরুত্বপূর্ণ পাসওয়ার্ডও স্মার্ট ফোনে সেইভ করে রাখেন। এই স্মার্ট ফোনটি যদি চুরি হয়ে যায় অথবা ছিনতাইকারীর হাতে চলে যায় তবে কী বিড়ম্বনায় না আপনাকে পড়তে হবে, একবার কল্পনা করে দেখেছেন?

প্রযুক্তির এই যুগে এসে আবিস্কার হয়ে গেল মোবাইল চোর ধরার অ্যাপ। অর্থাৎ অ্যাপের মাধ্যমে মোবাইল চোর ধরার উপায়।

আর নেই চিন্তা, চুরি হয়ে গেলে খুব সহজেই আপনি চোর ধরতে পারেন একটি মাত্র অ্যাপ ব্যবহার করেই। তাই বলে আপনি সাবধানতা অবলম্বন করবেন না তা কিন্তু মোটেও উচিৎ হবে না।

আসুন তাহলে জেনে নেই, মোবাইল চোর ধরার অ্যাপ অর্থাৎ অ্যাপের মাধ্যমে মোবাইল চোর ধরার উপায়।

মোবাইল চোর ধরার অ্যাপ | অ্যাপের মাধ্যমে মোবাইল চোর ধরার উপায় | how to catch mobile thief

অ্যাপের মাধ্যমে মোবাইল চোর ধরার উপায় [মোবাইল চোর ধরার অ্যাপ]

সফটালজি লিমিটেড নামের একটি সফটওয়্যার কোম্পানি সাম্প্রতি তৈরি করেছে এমন একটি অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল অ্যাপ, যার সাহায্য নিয়ে খুব সহজেই মোবাইল চোর ধরা সম্ভব হবে।

শুধু চুরি যাওয়া মোবাইলেই নয় বরং হারিয়ে যাওয়া মোবাইলের লোকেশনও জানতে পারা যাবে এবং উদ্ধার করতে পারবেন খুব সহজেই।

আসুন জেনে নেই অ্যাপটি সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য।

আরও জেনে নিন,

মোবাইল চোর ধরার অ্যাপ

বাংলাদেশের একদল সফটওয়্যার ইঞ্জিয়ার আবিষ্কার করলো মোবাইল চোর ধরার অ্যাপ বা হারিয়ে যাওয়া মোবাইল খুঁজে পাওয়ার অ্যাপ।

থিফগার্ড- মোবাইল চোর ধরার অ্যাপ

থিফগার্ড অ্যাপটি ব্যবহার করার মাধ্যমে খুব সহজে হারিয়ে যাওয়া মোবাইল খুঁজে বের করা সম্ভব হবে। অথবা চুরি যাওয়া মোবাইলের লোকেশন বের করতে সহজ হবে।

আসুন জেনে নেই থিফগার্ড অ্যাপটি সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য।

১. ফোন বন্ধ হবে না

হ্যাঁ আপনি সত্যিই পড়েছেন। এই অ্যাপটি ব্যবহার করলে চোর আপনার মোবাইলটি বন্ধ করতে পারবে না।

যখনই চোর বা অন্য কেউ ফোন অফ করার চেষ্টা করবে ঠিক তখই তার একটি ছবি স্বয়ংক্রিয়ভাবে তুলে নেবে এবং একটি নির্দিষ্ট জায়াগায় সংরক্ষিত হবে।

২. ছবি পাঠানো

আপনার হারিয়ে যাওয়া মোবাইলটি নিয়ে যে ঘাটাঘাটি করার চেষ্টা করবে তারই ছবি তুলে নির্দিষ্ট স্থানে পাঠিয়ে দেবে।

অর্থাৎ কেউ যদি ভুল পিন নম্বর অথবা ভুল প্যাটার্ন ব্যবহার করে তবে তৎক্ষণাৎ তার ছবি তুলে নেবে এবং একটি নির্দিষ্ট স্থানে পাঠিয়ে দেবে।

নির্দিষ্ট স্থানটি আপনি নিজেই সেটিংস এ গিয়ে সিলেক্ট করে দিতে পারবেন।

৩. কানেকশন সিকিউরিটি

থিফগার্ড অ্যাপটি ব্যবহার করলে চুরি যাওয়া বা হারিয়ে যাওয়া মোবাইলটি অন্য কোন ডিভাইসের সাথে কানেক্ট করানো সম্ভব হবে না।

৪. সিমের সিকিউরিটি

চোর চিন্তা করলো যে সে সিমটি পরিবর্তন করবে, তাতেও সে বিপদে পড়বে।

এমন একটি ফিচার থিফগার্ড অ্যাপটিতে দেয়া আছে কেউ নতুন সিম ব্যবহার করলেও নতুন সিমের নাম্বার আপনার কাছে চলে আসবে।

৫. ডাটা সিকিউরিটি

থিফগার্ড অ্যাপটি আপনার মোবাইলে ইন্সটল করা থাকলে অনুমতি ব্যতীত কোন প্রকার ডাটাতে প্রবেশ করার ক্ষমতা থাকবে না। পাশাপাশি এক্সেস করতেও পারবে না।

এখন প্রশ্ন আসতে পারে, কীভাবে কাজ করবে চোর ধরার অ্যাপটি? আসুন তাহলে দেখে আসি, কীভাবে মোবাইল চোর ধরার অ্যাপটি কীভাবে কাজ করবে?

জেনে নিন,

থিফগার্ড অ্যাপ কীভাবে কাজ করে?

থিফগার্ড অ্যাপটি যথাযথ ব্যবহার এবং কিছু নিয়ম ও স্টেপ অনুসরন করতে হয়। চলুন দেখা যাক স্টেপগুলো কি কি?

স্টেপ ১

অ্যাপটি ইন্সটল দেয়ার সময় একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে হয়। অ্যাপটি ইন্সটল করার পর অ্যাকাউন্টটি তৈরি করতে হবে অথবা www.thiefguardbd.com ওয়েবসাইটে গিয়ে অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে পারবেন।

স্টেপ ২

আপনার মোবাইল চুরি হয়ে যাওয়ার পরপরই যদি আপনি হাতের কাছের অন্য কোন ডিভাইস দিয়ে www.thiefguardbd.com ওয়েবসাইটে গিয়ে ইউজার নেইম এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করতে হবে।

এবং সাথে সাথেই আপনার চুরি যাওয়া বা হারিয়ে যাওয়া মোবাইলের ক্যামেরা অন হয়ে যাবে। শুধু কি তাই! সাথে যার কাছে মোবাইল আছে বা যেখানে আছে সেখানকার ছবি পাঠাতে থাকবে।

স্টেপ ৩

ধরে নেয়া যাক আপনার মোবাইলে লোকেশন অন করা ছিল না। এতে ঘাবড়ানোর কিছু নেই।

www.thiefguardbd.com এ প্রবেশ করে আপনার মোবাইলের লোকেশন অন করতে পারবেন এবং লোকেশন জানতে পারবেন।

থিপগার্ড অ্যাপ ব্যবহারের সুবিধা

থিপগার্ড অ্যাপ ব্যবহারের বিশেষ বিশেষ কিছু সুবিধা রয়েছে। আসুন জেনে নেই, থিফগার্ড অ্যাপ অথবা মোবাইল চোর ধরার অ্যাপ ব্যবহারের সুবিধা।

১. মোবাইলের মালিক চাইলেই হারিয়ে যাওয়া মোবাইলের স্ক্রিন সহজেই লক করতে পারবেন।

২. যে কোন সময় মোবাইলের ভাইরাস স্ক্যান করতে পারবেন।

৩. বাস কিংবা যেকোনো জায়গা থেকে অন্য কেউ আপনার মোবাইলে হাত দিলেই একটা সাইরেন বেজে উঠবে এবং সহজেই চোরকে ধরতে পারবেন।

৪. সতর্কতা সাইরেন বাজতেই থাকবে যতক্ষণ পর্যন্ত ফোনের ভিতরে ঢুকে অপশনে গিয়ে বন্ধ না করা হবে।

এখন একটা প্রশ্ন আসতেই পারে, কোন কোন মোবাইলে এই মোবাইল চোর ধরার অ্যাপ ব্যাবহার করা যাবে?

থিফগার্ড অ্যাপ কোন মোবাইলের জন্য প্রযোজ্য

এ কথা সত্যিই যে সব ধরণের মোবাইলের জন্য এই অ্যাপটি নয়। তবে অ্যান্ড্রয়েড-৭ থেকে শুরু করে যেকোনো ভার্সনের মোবাইলের ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যাবে এই অ্যাপটি।

মোবাইল চোর ধরার অ্যাপটি কোথায় পাওয়া যাবে?

বাংদেশের মোবাইল ফোনের দোকানগুলোতে পাওয়া যাচ্ছে এই অ্যাপটি। গ্রামের দিকে হয়তো এখন পাওয়া নাও যেতে পারে তবে ছোট বড় শহরগুলোতে পাওয়া যেতে পারে।

আরও জেনে নিন,

থিপগার্ড অ্যাপ এর মূল্য কত?

এতো সুন্দর এবং সবার জন্য ব্যবহার উপযোগী একটি অ্যাপ ফ্রি পাওয়া যায় কীভাবে? থিফগার্ড অ্যাপ অর্থাৎ মোবাইল চোর ধরার অ্যাপটি দুটি মেয়াদে খুব অল্প দামে কিনতে পাওয়া যাচ্ছে।

এক বছর মেয়াদের জন্য মূল্য ধরা হয়েছে ৩৯০ টাকা এবং ২ বছর মেয়াদের জন্য মূল্য ধরা হয়েছে ৬৫০ টাকা।

চোর ধরার অ্যাপ ডাউনলোড করার উপায়

এই অ্যাপটি গুগোল প্লে স্টোরে গিয়ে Thief Guard – anti theft app লিখে সার্চ দিলে সামনে চলে আসবে।

এবং খুব সহজেই ডাউনলোড করতে পারবেন এবং স্টেপ বাই স্টেপ যে যে ইনফরমেশন চাইবে সেগুলো পূরণ করতে পারবেন।

মূল্য পরিশোধ করার পর আপনাকে একটি অ্যাক্টিভেশন কোড দেয়া হবে। সেই অ্যাক্টিভেশন কোড ব্যবহার করে অ্যাক্টিভ করতে পারবেন খুব সহজেই।

মূল্য পরিশোধ করার জন্য খুব বেশী পরিশ্রম করতে হবে না। বিকাশের মাধ্যমেই করতে পারবেন মুল্য পরিশোধ। বিস্তারিত তথ্য জানতে ভিজিট করুন www.thiefguardbd.com এ।

আরও পড়ুন,

তো বন্ধুরা আজ আমরা জেনে নিলাম মোবাইল চোর ধরার উপায় এবং সেরা মোবাইল চোর ধরার অ্যাপ সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য।

আজ এই পর্যন্ত আগামীতে দেখা হবে নতুন কোন টপিক নিয়ে, ততদিনে ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন। আর হ্যাঁ লেখাটি ভালো লাগলে বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না কিন্তু।

মোবাইল চোর ধরার উপায় নিয়ে কোন পরামর্শ বা আপনার নিজস্ব কোন মতামত থাকলে অবশ্যই কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করে জানাবেন।

Check Also

Job circular in the Ministry of Fisheries and Livestock মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ে চাকুরী বিজ্ঞপ্তি

মৎস্য ও প্রাণীসম্পদ মন্ত্রণালয়ে চাকুরী বিজ্ঞপ্তি

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার, মৎস্য ও প্রাণীসম্পদ মন্ত্রণালয়ে নিম্নবর্ণিত শুন্য পদে চাকুরী বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। ১. …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!