Download Free FREE High-quality Joomla! Designs • Premium Joomla 3 Templates BIGtheme.net

যে ৫ টি কারণে সন্তান জন্মদানের ক্ষমতা কমে যায়

নারী কিংবা পুরুষ সবাই মা-বাবা হতে চান, সবাই চায় বাড়িতে নতুন মেহমান আসুক। কিন্তু অনেক কারণে গর্ভধারনে নানা ধরনের প্রতিবন্ধকতা দেখা দেয়।

একটি জরিপে দেখা গেছে, ১৫ থেকে ২০ মিলিয়ন নতুন দম্পতি সন্তান জন্ম দেয়ার ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতার শিকার হয়েছেন। বিভিন্ন কাজ, নানা ধরণের বদ অভ্যাস মুলত এক্ষেত্রে বাধা হয়ে দাড়ায়।

সন্তান জন্মদানের ব্যাপারে কেবল নারীদেরই সমস্যা থাকে বিষয়টা এমন নয়। ভারতে যেসব পুরুষের বয়স ৩১ বছরের বেশি তাদের মধ্যে প্রায় ৪০ ভাগ পুরুষ সন্তান জন্মদানে ব্যর্থ।

যত দিন যাচ্ছে ততোই এই বন্ধ্যাত্বের হার বেড়েই চলেছে। এর কারন হিসেবে ৫ টি গুরুত্বপূর্ণ কারণের কথা বলেছেন বিশেষজ্ঞগণ। 

বিশেষজ্ঞগণের মতে, অনিয়মিত খাদ্য গ্রহণ, অনিয়ন্ত্রিত লাইফস্টাইল, অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ, অবৈধ যৌনমিলন ইত্যাদি মূলত সন্তান জন্মদানে বাঁধা হয়ে দাড়াতে পারে।

কোন দম্পতির সন্তান গ্রহণের ইচ্ছা থাকলে নিচের কয়েকটি বিষয় অবশ্যই মাথায় রাখতে হবে।

5 Most Common Causes and Reasons for Infertility

১. শরীরের ওজন

অতিরিক্ত কম ওজন কিংবা অতিরিক্ত বেশি ওজন সন্তান জন্মদানের ক্ষেত্রে বাধা হয়ে দাড়াতে পারে। মহিলাদের ক্ষেত্রে ওজন কম হলে তাদের শরীরে হরমোনের তারতম্য দেখা দেয়।

হরমোনের ব্যাল্যান্স ঠিক থাকে না। ফলে গর্ভধারণের ক্ষেত্রে নান ধরনের সমস্যায় পড়তে পারে। এই সমস্যা পুরুষদের ক্ষেত্রেও হতে পারে।

তাই শরীরের ওজন অতিরিক্ত পরিমাণে কম হলে কিংবা বেশি হলে স্বামী স্ত্রী উভয়কে অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ গ্রহণ করতে হবে এবং ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী চলতে হবে।

২. বয়স

সন্তান জন্মদানের ক্ষেত্রে নারী পুরুষের বয়স অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। পুরুষদের ক্ষেত্রে ৪০ বছরের বেশী হলে সন্তান জন্মদানে সমস্যা দেখা দিতে পারে। এজন্য পুরুষদের জন্য বয়সসীমা ৪০ বছরের মধ্যে।

অপরদিকে মহিলাদের ক্ষেত্রে ৩৫ বছরের মধ্যে হলে ভালো হয়। ৩৫ বছরের বেশি হলে মহিলাদের গর্ভধারণে নানা ধরণের সমস্যা দেখা দিতে পারে।

৩. মদ্যপান

সন্তান জন্মদানে ব্যর্থ হওয়ার পিছনে মদ্যপান অনেকাংশে দায়ী, তবে কিভাবে বাধা প্রদান করে তা নিয়ে চলছে গবেষণা।

বিশেষজ্ঞগণের মতে, বন্ধ্যাত্বের হাত থেকে রেহাই পেতে মদ্যপান হতে বিরত থাকাই ভালো। কেননা, অতিরিক্ত মদ পান করলে পুরুষের শুক্রাণুর গুণাগুণ নষ্ট হয়ে যায়। এই বিষয়টি পুরুষ ও মহিলা উভায়ের জন্য প্রযোজ্য।

৪. ধূমপান

ধূমপানের কারণে শ্বাসকষ্ট তো ডেকে আনে তাছাড়া ক্যান্সারের প্রধান কারণ হতে পারে ধূমপান। আপনি জানেন কি! ধূমপানের কারণে ধূমপানকারী মহিলারা গর্ভধারণে ব্যর্থ হতে পারে।

সিগারেটের ক্ষতিকর পদার্থ মানব শরীরের ফ্যালোপাইন টিউবকে আক্রমণ করে। যে কারণে ডিম্বাণু মাতৃগর্ভে সহজে পৌছাতে পারে না।

অপরদিকে পুরুষদের জন্য রয়েছে খারাপ খবর, ধূমপানের কারণে পুরুষের বীর্য কমে যায়। তাই বন্ধ্যাত্বের হাত থেকে বাঁচতে হলে আজকেই ধূমপান ছেড়ে দিন।

৫. মানসিক চাপ

আমরা কম বেশী সবাই জানি যে, দুশ্চিন্তা এবং মানসিক চাপ মানব শরীরে মারাত্মক প্রভাব ফেলে। এর ফলে মানসিক রোগ, হাঁপানি, হার্টের অসুখ ইত্যাদি হতে পারে।

এছাড়াও, অতিরিক্ত দুশ্চিন্তা আপনার বন্ধ্যাত্বের কারণ হতে পারে। মানসিক চাপের কারণে পুরুষের বীর্যের পরিমাণ কমে যায়, এবং গুণাগুণ নষ্ট হয়ে যায়।

অপরদিকে, মহিলাদের ক্ষেত্রে ডিম্বস্ফোটনে মারাত্মক সমস্যার সৃষ্টি করে।

 

আরও পড়ুন, 

 

*লেখাটি ভালো লাগলে আপনার প্রিয়জনদের সাথে শেয়ার করুন*

Check Also

Health benefits of ripe mangoes, পাকা আম খাওয়ার উপকারিতা এবং পাকা আম খাওয়ার অপকারিতা

পাকা আম কেন খাবেন এবং কেন খাবেন না? বিস্তারিত জেনে নিন আজকেই

বাংলাদেশে নানা ধরণের দেশীয় ফল পাওয়া যায়। এর মধ্যে আম অন্যতম। আমকে বলা হয় ফলের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!