Download Free FREE High-quality Joomla! Designs • Premium Joomla 3 Templates BIGtheme.net

৫ টি উপায়ে বন্ধ হয়ে যাবে চুল পড়া

মাত্রারিক্ত মাথার চুল উঠে যাওয়া বর্তমানে মেয়েদের বেশ ভাবিয়ে তুলছে। স্বাভাবিকভাবে একজন মানুষের প্রতিদিন কিছু চুল উঠে যায় আবার নতুন চুল গজায়।

কিন্তু মাত্রাতিরিক্ত চুল পড়ে গেলে চুল অনেক পাতলা হয়ে যায় এতে মেয়েরা অনেক সমস্যায় পড়ে যায়। পাতলা চুলে ঠিক মত ফ্যাশন করা যায় না, তাছারা পাতলা চুলে তেমন সৌন্দর্য থাকে না।

শুধু মেয়েরাই এই সমস্যায় ভুগে এমনটা নয়। ছেলেরাও বর্তমানে চুল পড়া সমস্যায় ভুগে থাকে। ছেলে কিংবা মেয়েদের চুল উঠে যাওয়ার পিছনে প্রধান কারণ হল পুষ্টির অভাব। এজন্য খাবারের প্রতি অবশ্যই মনযোগী হতে হবে।

আজকে আমরা মাত্রারিক্ত চুল ওঠা বন্ধ করতে ঘরোয়া কিছু উপায় জেনে নেব।

There are 5 ways to stop hair loss

চুল পড়া বন্ধে কিছু কার্যকরী ঘরোয়া উপায়

মাথার চুল পড়া নিয়ে দুশ্চিন্তা না করে নিচের কিছু ঘরোয়া উপায় তুলে ধরা হয়েছে তা জেনে নিন এবং নিজেই নিজের চুল পড়া সমস্যার সমাধান করে ফেলুন।

১. টক দই, ডিম, ও মেহেদীর মিশ্রণ

মেহেদীর মধ্যে অনেক গুণ রয়েছে যা চুলের জন্য বেশ স্বাস্থ্যকর। ডিমের সাদা অংশে এমন কিছু উপকারী উপাদান আছে যা মাথার ত্বকে পুষ্টির যোগান দিতে সহায়তা করে, এবং টক দই মাথার ত্বক আদ্র রাখে ফলে চুল পড়া বন্ধ করতে সাহায্য করে।

এই তিনটি উপাদানের একটি কার্যকরী মিশ্রণ তৈরি করতে হবে। প্রথমে পরিমাণমত কিছু মেহেদী পাতা বেটে নিতে হবে, এতে দুই চামচ টক দই এবং একটি ডিমের সাদা অংশ ভালোভাবে মিশিয়ে নিতে হবে।

আপনার চুল যদি অনেক শুষ্ক হয়ে থাকে তবে একটি ভিটামিন এ ক্যাপস্যুল মিশিয়ে নিতে পারেন।

এই মিশ্রণটি চুলের গোঁড়া থেকে শুরু করে আগা পর্যন্ত ভালোভাবে লাগিয়ে নিতে হবে। ভালোভাবে লাগান হয়ে গেলে ২ ঘণ্টা পর ধুয়ে ফেলতে হবে। এভাবে সপ্তাহে একবার ব্যবহার করলে আপনার মাথার চুল পড়া অনেকাংশে কমে যাবে।

২. ভিটামিন

আমরা পূর্বেই জেনেছি যে মাথার চুল পড়ার অন্যতম কারণ হচ্ছে পুষ্টির অভাব কিংবা ভিটামিনের অভাব। কিছু ভিটামিন আছে যারা চুলকে দ্রুত বৃদ্ধি করতে সহায়তা করে, যেমন, বায়োটিন ও ভিটামিন সি।

এই ভিটামিন দুটির চাহিদা খাবারের মাধ্যমে পূরণ করতে পারেন অথবা ভিটামিন ট্যাবলেট গ্রহনের মাধ্যমেও পূরণ করতে পারেন। আপনার প্রতিদিনের খাবারের মধ্যে পালং শাক, ব্রকলি, লেবু জাতীয় ফল ইত্যাদি রাখতে পারেন।

এসব ফলমূল নিয়মিত গ্রহন করলে চুল পড়া বন্ধ হবে অনেকটাই।

৩. টেনশন বা মানসিক চাপ কমাতে হবে

যেকোনো ধরনের দুশ্চিন্তা, চাপ, সাংসারিক চিন্তা ইত্যাদির কারণে চুল পড়তে পারে। মাথা থেকে টেনশন দূর করতে পারলে আপনার মাথা থেকে চুল উঠা বন্ধ হয়ে যাবে। টেনশন দূর করতে মেডিটেশন বা ইয়োগা করতে পারেন।

৪. দারুচিনি, মধু এবং অলিভ অয়েল

প্রথমে একটি পাত্রে এক চামচ দারুচিনি গুড়ো, ৫ চামচ অলিভ অয়েল এবং তিন চামচ মধু নিয়ে ভালোভাবে মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন।

এক্ষেত্রে প্রথমে আপনাকে মধু ও অলিভ অয়েল একসাথে মিশিয়ে একটু গরম করে নিয়ে তাতে দারুচিনি গুড়ো মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করতে হবে।

এই পেস্টটি চুলের গোঁড়ায় ভালোভাবে মাখিয়ে নিয়ে ৪০-৫০ মিনিট পর সালফার ফ্রী শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে। এভাবে পরিচর্যা করলে চুল পড়া অনেকাংশে কমে আসবে।

৫. অ্যাপল সাইডার ভিনেগার

স্বাস্থ্য, ত্বক ও চুলের জন্য চমৎকার একটি উপকরণ হচ্ছে অ্যাপল সাইডার ভিনেগার। অ্যাপল সাইডার ভিনেগারে অধিক পরিমানে অ্যাসিটিক এসিড রয়েছে যা চুল পড়া বন্ধে কার্যকর ভুমিকা পালন করে থাকে।

প্রথমে ২-৩ চামচ অ্যাপল সাইডার ভিনেগার এক কাপ পানিতে ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। তারপর তা ভালোভাবে চুলে লাগিয়ে নিন ভেজা ভেজা করে। কিছুক্ষণ রাখার পর শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

এভাবে পরিচর্যা করলে চুল পড়া অনেকাংশে কমে যাবে।

 

আরও পড়ুন,

 

*নিচের বাটনে ক্লিক করে আপনার প্রিয়জনদের সাথে শেয়ার করুন*

Check Also

How to convert white hair into black naturally

সাদা চুল কালো করার ঘরোয়া উপায়

সংসারের চিন্তা, পড়াশুনা নিয়ে চিন্তা, অফিসের কাজ নিয়ে চিন্তা এরকম হাজারও চিন্তা মাথায় নিয়ে ঘুরে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!